কারিনার বিয়েতে দাওয়াত পাইনি : সাবেক প্রেমিক শহিদ কাপুর

নিজের অতীত সম্পর্কের ব্যাপারে স্বচ্ছতা বজায় রাখেন বলিউড তারকা শহিদ কাপুর। বিচ্ছেদ হতেই পারে, কিন্তু সম্পর্কে কালো রক্ত রাখতে চান না এ অভিনেতা। প্রকাশ্যেই বলেন সব। রাখঢাক ছাড়াই শুভকামনা করেন।

অভিনেত্রী কারিনা কাপুর ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গে প্রেম ছিল শহিদ কাপুরের, বি-টাউনের অনুরাগী মাত্রই এ কথা জানেন।

একবার নিজেই বলেছিলেন, কারিনার সঙ্গে সম্পর্ক দীর্ঘদিনের হলেও প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে ছিল সংক্ষিপ্ত সময়ের। যা হোক, তিন তারকাই এখন বিয়েশাদি করে দিব্যি সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন।

যেকোনো আলাপ অনুষ্ঠানেই প্রাণবন্ত শহিদ কাপুর। সাবেক প্রেমিকাদের প্রসঙ্গ তোলেন সঞ্চালক। এবারও উঠল। সম্প্রতি নেহা ধুপিয়ার চ্যাট শোতে শহিদ কাপুর ফের সেই প্রসঙ্গের মুখোমুখি হলেন।

ভারতের বিনোদন সংবাদমাধ্যম পিংকভিলার প্রতিবেদন জানাচ্ছে, নেহার ওই শোতে সাবেক প্রেমিকাদের নিয়ে প্রশ্ন করা হয় শহিদকে। সবাই জানেন, বিচ্ছেদ হলেও এখনো প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গে সুসম্পর্ক রয়েছে শহিদের। এমনকি নিক জোনাস-প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বিয়ের অনুষ্ঠানে দাওয়াত দেওয়া হয়েছিল শহিদকে। হাজিরও হয়েছিলেন শহিদ। কিন্তু কারিনা কাপুর-সাইফ আলি খানের বিয়ের অনুষ্ঠানে? শহিদ জানালেন, তাঁকে নিমন্ত্রণ করা হয়নি।

‘কারিনার বিয়েতে? মনে পড়ছে না। অনেক দিন হয়ে গেল। মনে হয় না আমাকে নিমন্ত্রণ করা হয়েছিল,’ নেহা ধুপিয়ার সঙ্গে আলাপকালে বলেন শহিদ কাপুর।

কারিনা ও শহিদ দীর্ঘদিন চুটিয়ে প্রেম করেছেন। তাঁদের মনোমালিন্য হয়। এরপর দুজন আলাদা হয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। এমনকি একসঙ্গে কাজ না করারও সিদ্ধান্ত নেন। যা হোক, পরে স্ক্রিনে না হলেও ‘উড়তা পাঞ্জাব’ সিনেমার পর একসঙ্গে হাজির হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন দুজন। ওই ছবির প্রচারণাকালে এক মঞ্চে ওঠেন শহিদ-কারিনা। গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাব দেন। বলেন, ফের একসঙ্গে কাজ করবেন।

এখন শহিদ ও কারিনার আন্তরিক সম্পর্ক বিদ্যমান। একে অন্যকে নিয়ে জনসমক্ষে কথা বলেন। কারিনার স্বামী সাইফের সঙ্গেও কাজ করেছেন শহিদ। ‘রেঙ্গুন’ সিনেমায় কাজ করার পরে একটি মঞ্চ শোতে একসঙ্গে হাজির হয়েছিলেন, দুর্দান্ত কৌতুকও করেছেন দুজন।