দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি জিততে অ্যাধাত্মিক গুরুর সাহায্য চেয়েছিলেন শাস্ত্রী'

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে হেরে পিছিয়ে পড়ার পরে আধ্যাত্মিক গুরুর কাছে গিয়েছিলেন ভারতের প্রধান কোচ রবি শাস্ত্রী'।

বাংলাদেশকে দমন করে দ্বিতীয় ম্যাচটি ৮ উইকে'টের বড় ব্যবধানে জিতেও নিয়েছে ভারত।

দিল্লিতে প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ ও ভারত। যেখানে ভারতকে ১৪৮ রানে আ'ট'কে দেয় টাইগাররা। মুশফিকুর রহিমের দুর্দান্ত ব্যাটিং এবং সৌম্য সরকার, মোহাম্ম'দ নাইম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের যোগ্য সঙ্গে ৭ উইকে'টের বড় জয় পায় বাংলাদেশ।

নিজেদের মাটিতে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ও টি-টোয়েন্টি সংস্করণে বাংলাদেশের বি`পহ্মেপ্রথম হারের পরে জয়ের জন্য ম'রিয়া হয়ে যায় ভারত। দিল্লি থেকে দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে রাজকোটে যায় দুই দল। সেখানে গিয়ে ভারতের কোচসহ ক্রিকেটাররা ছুটে যান মন্দিরে এবং এক গুরুর সাথে দেখা করেন।

একসূত্রে জানা যায়, উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান শিখর ধাওয়ান, কোচ শাস্ত্রী'সহ বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার স্বামী নারায়ণ মন্দিরে যান দ্বিতীয় ম্যাচের আগে। সেখানে আধ্যাত্মিক গুরু স্বামী বাপা মহন্তের কাছে তারা আশীর্বাদ নেন।

‘রবি শাস্ত্রী' ও কিছু খেলোয়াড়, যেখানে শিখর ধাওয়ানও ছিলেন, তারা এখানে স্বামী নারায়ণ মন্দিরে আসেন এবং স্বামী বাপা মহন্তের কাছে আশীর্বাদ নেন। বাপা ভারতের সিরিজ ও খেলোয়াড়দের সুস্থতার প্রার্থনা করে দেন,’ এক সূত্রের ভাষ্যমতে।

দ্বিতীয় ম্যাচটিতে আবার সিরিজের ফিরেছে ভারত। রাজকোটে বাংলাদেশকে ৮ উইকে'টের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিকরা। এখন ১-১ ব্যবধানে সিরিজে সমতা আছে। রবিবার ( ১০ নভেম্বর) নাগপুরে অলিখিত ফাইনালে মুখোমুখি হবে ভারত ও বাংলাদেশ।

ভারতের কোচ শাস্ত্রী' নিজেও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে তার অ্যাকাউন্টে গুরুর সাথে ছবি দিয়েছেন।