একই রাতে ৭ সরকারি অফিসে চু'রি

নওগাঁর ধামইরহাটে এক রাতে ৭ সরকারি অফিসে চু'রির ঘটনা ঘটেছে। চো'রেরা জানালার গ্রিল কে'টে ও দরজার তালা ভেঙ্গে অফিসে প্রবেশ করে নগদ টাকা নিয়ে গেছে।

মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। নৈশপ্রহরী থাকা সত্ত্বেও এ চু'রির ঘটনা ঘটে। পু'লিশের ঊর্ধ্বতন কর্মক'র্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

অফিসগুলো হলো-উপজে'লা ভূমি অফিস, উপজে'লা শিক্ষা অফিস, উপজে'লা বিআরডিবি অফিসে, উপজে'লা মৎস্য অফিস, উপজে'লা হিসাব রক্ষণ অফিস, উপজে'লা যুব উন্নয়ন কার্যালয় ও আনসার ভিডিপি ব্যাংক।

জানা গেছে, একটি সংঘবদ্ধ চো'রের দল ধামইরহাট উপজে'লা পরিষদের অবস্থিত ৭টি সরকারি অফিসের জানালার গ্রিল কে'টে এবং দরজার তালা ভেঙে অফিসে প্রবেশ করে। এ সময় তারা আলমা'রি ও ফাইল ক্যাবিনেট ভেঙ্গে মূল্যবান কাগজপত্র তছনছ করে মোট ১০ হাজার ৫ টাকা চু'রি করে নিয়ে যায়। পুরো উপজে'লা প্রশাসন চত্বর সিসি ক্যামেরায় আওতায় ছিল।

সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায় রাত সাড়ে ৩ টায় চো'রের দল বিভিন্ন অফিসে চু'রি করে ভোর ৫টার দিকে চলে যায়। কয়েকটি অফিসে নৈশপ্রহরী থাকলেও তারা ঘুমিয়ে পড়ার কারণে কিছুই জানতে পারেনি।

নওগাঁর অ'তিরিক্ত পু'লিশ সুপার আবু সালেহ মো.আশরাফুল আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। উপজে'লা নির্বাহী অফিসার গনপতি রায় বলেন,‘সিসি ক্যামেরার ফুটেজসহ সার্বিক বিষয়ে ত'দন্ত করে দেখা হচ্ছে। যারা এর সঙ্গে জ'ড়িত থাকবে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে।’

এ ব্যাপারে ধামইরহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো.শামীম হাসান সরদার বলেন, ‘এক সঙ্গে সরকারি ৭ অফিসের চু'রির ঘটনা একটি স্প'র্শকাতর বিষয়। সবকিছু খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ওই রাতে নৈশপ্রহরী হিসেবে যে ৭ জন দায়িত্বে ছিল তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেওয়া হয়েছে। নিরাপত্তা ব্যবস্থা জো'রদার করা হবে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত থানায় সম্মিলিতভাবে একটি সাধারণ ডায়েরির প্রস্তুতি চলছিল।’