শ্বশুর বাড়ি ও বাংলাদেশের আপ্যায়নের প্রশংসায় পঞ্চমুখ সৃজিত

কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি ও বাংলাদেশের মডেল এবং অ'ভিনেত্রী মিথিলা গেল ৬ ডিসেম্বর বিয়ে করেছেন।

এরপর নতুন বউকে সঙ্গে নিয়ে প্রথমবারের শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে এসে আবেগে আপ্লুত হয়েছিলেন সৃজিত মুখার্জি।

শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে আসলেই দারুণ আপ্যায়ন হয় তার। এবার এক গণমাধ্যমের কাছেও শ্বশুর বাড়ির ভীষণ প্রশংসা করলেন সৃজিত। তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন মিথিলাও।

সেই সাক্ষাৎকারে নিজেদের ভালোবাসার গল্প শুনিয়েছেন তারা। এক প্রশ্নের উত্তরে সৃজিত জানান, মিথিলার বাড়িতে আসলে সৃজিতকে যেভাবে ২১ রকমের পদ দিয়ে আপ্যায়ন করা হয়।

মিথিলাকে কখনও ২১ রকমের রান্না করা খাবার দিয়ে সৃজিতের বাড়িতে আপ্যায়ন করা সম্ভব হয় না বলে জানান পরিচালক।

সৃজিত বলেন, খাওয়া-দাওয়া এবং আপ্যায়নের দিকে বাংলাদেশ অনেক এগিয়ে। শুধু ভারতবর্ষ নয়, খাওয়া-দাওয়া এবং আতিথেয়তার দিক থেকে গোটা বিশ্বের মধ্যে এবং জাতির মধ্যে এগিয়ে বাংলাদেশ।

নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি ও অ'ভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা বিয়ের পর এবারই প্রথম ভালোবাসা দিবস উদযাপন করছেন।

ভারতের একটি সংবাদমাধ্যমকে মিথিলা জানিয়েছিলেন, সৃজিতের সঙ্গে থাকার দিনগুলোই তার কাছে ভ্যালেন্টাইন ডে’র মতো। তাই ওই সময়ের মধ্যে সৃজিতের কাছ থেকে তিনি যা পেয়েছেন, তাই তার কাছে ভ্যালেন্টাইন উপহার। বিশেষ উপহার হিসেবে একে অ'পরকে সময় দেবেন বলেও জানান এই অ'ভিনেত্রী।

মিথিলা বলেন, ‘এই ভালোবাসার দিনে সৃজিত আর আমি যে উপহার একে অ'পরকে দিতে চাই, তা হচ্ছে সময়।’