ভালোবাসা দিবসে ঝরে গেল ২২টি জীবন

বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে আজ বাংলাদেশে যেন লেগেছিল লা’শের মিছিল। শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকালেই রাঙামাটিতে ডুবে যায় একটি টুরিস্ট বোট, মা'রা যান পাঁচজন দর্শনার্থী। ঘটনাটি ঘটে কাপ্তাই হৃদে। একই স্থানে দুপুরে ডুবে যায় আরও একটি টুরিস্ট বোট, এবার মা'রা যান তিনজন। এ তো কেবল শুরু, সারাদিন ধরে দেশজুড়ে ঘটেছে এমন আরো অনেক ঘটনা।

কুমিল্লায় অ'সুস্থ মা’কে নিয়ে ফিরছিলেন এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী। ফেরার পথে বেপরোয়া এনা বাসের চাপায় নি'হত হন তিনি। ব্রাহ্মণবাড়িয়াতে সম্পত্তির ভাগ দিতে দেরি হওয়ায় বাবাকে মে'রে ফেলেছেন এক ছেলে। ময়মনসিংহে সড়ক দুর্ঘ'টনায় নি'হত হয়েছেন আরো দুইজন। আবার রাঙামাটিতেই বাস উলটে প্রাণ হারিয়েছেন বাসের হেলপার। গোপালগঞ্জে বাস ও নসিমনের সং'ঘর্ষে নি'হত হয়েছেন পাঁচজন।

সন্ধ্যার দিকে জানা যায় আরেকটি বড় ঘটনা। রাজধানী ঢাকার দক্ষিণখানে প্রেমবাগান এলাকার একটি বাসায় মেলে এক নারী ও দুই শি'শুর ম'রদেহ। পরে জানা যায় এরা মা ও সন্তান।

তবে ঐ নারীর স্বামীকে খুঁজে পাওয়া যায় নি। ধারণা করা হচ্ছে, স্ত্রী' ও দুই সন্তানকে শ্বা'সরোধে মে'রে তিনি গা ঢাকা দিয়েছেন। এছাড়া, বাবা বকাঝকা করায় ভোলা জে'লায় আত্নহ'ত্যা করেছে সাদিয়া নামের এক কিশোরী। আজ ভালোবাসা দিবসের দিনজুড়ে এভাবেই সারাদেশে ঝরে গেছে অন্তত ২২টি প্রাণ।