রোহিঙ্গা নি'র্যাতন: মিয়ানমা'রে কোর্ট মা'র্শালে তিন সে'নার সাজা

রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো বর্বর নি'র্যাতনে তিন সে'না সদস্যকে দোষী সাব্যস্ত করেছে মিয়ানমা'র। কোর্ট মা'র্শালের মাধ্যমে তাদের সাজার ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সে'নাবাহিনী।

২০১৭ সালে রোহিঙ্গাদের ওপর চালানো গণহ'ত্যার অ'ভিযোগে জাতিসংঘের শীর্ষ আ'দালতে অ'ভিযু'ক্ত হওয়ার পর মঙ্গলবার এই সাজার কথা জানাল তারা।

বছর তিনেক আগে মিয়ানমা'র সে'নাদের ব্যাপক হ'ত্যা, ধ'র্ষণ, লুণ্ঠনসহ অমানবিক নি'র্যাতনের মুখে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয় অন্তত সাড়ে সাত লাখ রোহিঙ্গা। মানবাধিকার সংগঠনগুলো রাখাইনের বেশ কয়েকটি গ্রামে ব্যাপক গণহ'ত্যার অ'ভিযোগ তুলেছে মিয়ানমা'র সে'নাদের বি'রুদ্ধে। এর মধ্যে গু ডার পাইন নামে একটি গ্রামে অন্তত পাঁচটি গণকবরের সন্ধান পাওয়ার দাবি উঠেছে।

শুরু থেকেই এসব অ'ভিযোগ অস্বীকার করলেও আন্তর্জাতিক চাপের মুখে গত বছরের সেপ্টেম্বরে অ'ভিযু'ক্তদের বি'রুদ্ধে কোর্ট মা'র্শালের প্রক্রিয়া শুরু করেছিল মিয়ানমা'র সে'নাবাহিনী। সেসময় তারা নি'র্যাতনের কথা স্বীকার করে জানিয়েছিল, রোহিঙ্গা গ্রামগুলোতে সে'না সদস্যদের ‘নির্দেশনা অনুসরণে দুর্বলতা’ দেখা গেছে।

মঙ্গলবার মিয়ানমা'র সে'নাবাহিনীর কমান্ডার-ইন-চিফ অফিস ঘোষণা দিয়েছে, কোর্ট মা'র্শালে অ'ভিযু'ক্তরা দোষী প্রমাণিত হয়েছে এবং তিনজনকে সাজা দেয়া হচ্ছে। তবে দোষীদের অ'প'রাধের ধরন বা তাদের সাজার পরিমাণ কী' সে স'ম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের দেয়া তথ্যমতে, রাখাইনে মিয়ানমা'র সে'নাদের হাতে শত শত মানুষ প্রা'ণ হারিয়েছে।