মা ও সন্তানের জীবন বাঁ’চাতে চাকুরি ছেড়ে স্ত্রী'’ কে নিয়ে হাসপাতা’লে দিন পার করছেন স্বামী

কারিমা আক্তার (লিজা), বয়সঃ ২৪। এই বোনটি ম’রণ ব্যাধি ব্লাড ক্যান্সা’রে আ’ক্রান্ত।

কুমিল্লা জে’লার দেবিদ্বার থা’নার ধামতী গ্রামের অ’তি সাধারণ নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের মে’য়ে। ভালবাসার মানুষের সাথে ২.৫ বছরের সংসার জীবনে একটি পুত্র সন্তানের জননী হন ১৭

মাস আগে। সন্তান কোলে তোলার আনন্দটা তার কাছে ৮-১০টা সাধারন মায়ের মতো ছিল না। কেননা তার সন্তান একটা জন্মগত ত্রুটি (পায়ূপথ ছিল না) নিয়ে পৃথিবীতে এসেছিল।

তাই জন্মের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই তাকে একটা প্রাথমিক অ’পারেশন করতে হয়। ডাক্তার বলেন ১৮ মাস বয়সে একটা তারও ৪ মাস পরে আরও একটি অ’পারেশন করে তার পায়ুপথ ঠিক করতে হবে। স্বামী কেবল পড়াশোনা শেষ করে একটা প্রাইভেট কোম্পানিতে চাকুরি পেয়েছিল। তাদের জীবন সুখেই কাটছিলো।

গত মা’র্চ মাসে হঠাৎ করে তার চোখে সমস্যা দেখাদেয় সাথে প্রচন্ড মা’থা ব্যাথা।প্রথমে কুমিল্লা ও পরে ঢাকায় হসপিটালে অনেক পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে জানা যায় তার ব্লাড ক্যান্সার হয়েছে। সুখের জীবনে নিমিশেই বিস্বাদের কালো ছায়া নেমে আসে। শুরু হলো টিকে থাকার যু’দ্ধ। সেই যু’দ্ধে সঙ্গী হলো ভালবাসার মানুষটি। চাকুরি ছেড়ে স্ত্রী'’ কে নিয়ে হাসপাতা’লে দিন পার করছেন গত চার মাস ধরে।

পরিবার এবং অাত্মীয় স্বজনদের সাহায্যে এতো দিন পর্যন্ত চিকিৎসা চলে আসছে। ৬,০০,০০০/- ( ছয় লক্ষ টাকা) খরচ হয়ে গেছে।বর্তমানে ঢাকা পিজি হাসপাতা’লেকেমোথেরাপি নিচ্ছে। চিকিৎসার জন্য প্রায় ১৫,০০,০০০/- (পনেরো লক্ষ ) টাকার প্রয়োজন।এদিকে শি’শুটির অ’পারেশনের জন্য আরও প্রায় ২,০০,০০০/- ( দুই লক্ষ) টাকার প্রয়োজন।

এখন মানবতাই পারে এই মা ও সন্তানের জীবন বাঁ’চাতে। তাই দুটি জীবন বাঁ’চাতে সকল মানবপ্রে’মী, হৃদয়বান মানুষকে এগিয়ে আসার জন্য অনুরোধ করছি।

সাহায্যের জন্য যোগাযোগ:- রোগীর স্বামী: ০১৭০৮৩৪৫৪৪১ রোগীর বড় বোন: ০১৯৩৩৭৯৫১৬