Thursday , April 26 2018
Breaking News

নতুন করে বিপদে সাকিবঃ সাকিবকে ফাইনালে সাসপেন্ড করতে শ্রীলঙ্কার আবেদন

নিদাহাস ট্রফিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের দারুণ জয়ের আগে অপ্রীতিকর ঘটনার জন্ম দেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও রিজার্ভ খেলোয়াড় নুরুল হাসান। এ কারণে তাদের ম্যাচ ফি’র ২৫ শতাংশ জরিমানা করেছেন ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রড। শুক্রবার (১৬ মার্চ) তিনি এই সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু এই শাস্তিতে খুশি নয় শ্রীলঙ্কা। তারা লিখিতভাবে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসিকে সিদ্ধান্তটি পুনর্বিবেচনার আবেদন করেছে।

একটি সূত্র বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছে, ‘শ্রীলঙ্কা ড্রেসিং রুমের কাচ ভাঙা নিয়ে বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলেছে। তাদের চাওয়া, শাস্তি বাড়িয়ে সাকিবকে যেন অন্তত ভারতের বিপক্ষে ফাইনালে সাসপেন্ড করা হয়।’ তবে এ বিষয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি বলেও সূত্রটি জানায়।

প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, ড্রেসিং রুমের মধ্যে থাকা কোনও বাংলাদেশি খেলোয়াড় ভেঙেছেন দরজার কাচ। বাইরের দিকে মুখ করে থাকা সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে বাংলাদেশ দলের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় দৌড়ে বেরিয়ে যাচ্ছেন ড্রেসিং রুম থেকে। ধারণা করা হচ্ছে, ওই মুহূর্তেই ভেঙেছে দরজার কাচ। তবে বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা যে ইচ্ছে করে দরজা ভাঙেননি, সেটা অবশ্য উঠে এসেছে প্রাথমিক অনুসন্ধানে।

এদিকে ম্যাচ রেফারি ক্রিস ব্রড রিপোর্টে বলেছেন, ‘শুক্রবারের ঘটনা ছিল হতাশাজনক। ক্রিকেটের কোনও পর্যায়ে খেলোয়াড়দের কাছ থেকে এমন আচরণ কাঙ্ক্ষিত নয়। আমি জানি, এখানে উত্তেজনা কাজ করছিল। কিন্তু দুই খেলোয়াড়ের এমন কর্মকাণ্ড অগ্রহণযোগ্য। যদি চতুর্থ আম্পায়ার সাকিবকে না থামাতেন ও মাঠের আম্পায়ার যদি থিসারা পেরেরা ও নুরুল হাসানকে না আটকাতেন, তাহলে আরও খারাপ কিছু ঘটতে পারতো।’

শনিবার (১৭ মার্চ) সকালে নিজেদের দোষ স্বীকার করেছেন সাকিব ও নুরুল। শাস্তিও মেনে নিয়েছেন তারা। তাই শুনানির দরকার নেই বলে জানান ম্যাচ রেফারি।

বাংলাদেশের ইনিংসের ১৯.২ ওভারের সময় লেগ আম্পায়ার নো বল কল দিলেও পরে দুই আম্পায়ার মিলে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন। এর প্রতিবাদ জানিয়ে মাহমুদউল্লাহ ও রুবেল হোসেনকে মাঠ ছেড়ে আসার ডাক দেন সাকিব।

এর কিছুক্ষণ আগে রিজার্ভ খেলোয়াড় নুরুল হাসান পানি নিয়ে মাঠে ঢোকার পর শ্রীলঙ্কার কুশল মেন্ডিসের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন। ম্যাচ শেষেও ছিল সেই উত্তাপ। একপর্যায়ে প্রতিপক্ষ অধিনায়ক থিসারা পেরেরার দিকে আঙুল উঁচিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন বাংলাদেশের এই উইকেটরক্ষক।