Thursday , April 26 2018

এই ১৩ ব্যাটসম্যানের তিন ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি আছে

ক্রিকেট খেলা সাধারণত তিন ফরম্যাটের। একজন ব্যাটসম্যানের জন্য আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি পাওয়া সবচেয়ে বড় অর্জন। কুমার সাঙ্গাকারা, জ্যাক ক্যালিস কিংবা শচীন টেন্ডুল্কারের মতো কিংবদন্তী খেলোয়াড়দের একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কিংবা টেস্ট ক্রিকেটে অহরহ সেঞ্চুরি থাকলেও নেই কোনো আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি আছে এমন ক্রিকেটারের সংখ্যা এ পর্যন্ত ১৩ জন। তালিকায় একমাত্র বাংলাদেশি খেলোয়াড় হিসেবে আছেন তামিম ইকবাল।

১. ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ):
আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি করা প্রথম ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। তার বিধ্বংসী ব্যাটিং প্রতিপক্ষের বোলারদের কাছে এক আতংকের নাম। মাঠে তার ব্যাট যেন হয়ে ওঠে এক ধারাল তলোয়ার।

২. ব্রেন্ডন ম্যাককালাম (নিউজিল্যান্ড):
তালিকায় ২য় অবস্থানে আছেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সফল খেলোয়াড় তিনি। ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান হিসেবে। তবে ইঞ্জুরির জন্য নিজেকে সরিয়ে নিয়েছেন উইকেটকিপিং থেকে।

৩. সুরেশ রায়না (ভারত):
বর্তমান ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম এক সেরা ফিল্ডার তিনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি করা প্রথম এশিয়ান ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়না। ২০০৫ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তার একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়।

৪. মাহেলা জয়াবর্ধনে (শ্রীলঙ্কা):
এ তালিকায় প্রথম শ্রীলঙ্কান খেলোয়াড় মাহেলা জয়াবর্ধনে। তার সময়কালে তিনি ছিলেন অন্যতম এক সেরা ব্যাটসম্যান। স্পিন বল মোকাবেলায় তার শটগুলো ছিল দেখার মতো। ১৯৯৭ সালে ভারতের বিপক্ষে হয় টেস্ট অভিষেক। তার পরের বছর ১৯৯৮ সালে করেন প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি।

৫. তিলকরত্নে দিলশান (শ্রীলঙ্কা):
দিলশানের জন্ম মুসলিম বাবা এবং বৌদ্ধ মায়ের সংসারে। জন্মগত নাম তুয়ান মোহাম্মদ দিলশান। ১৬ বছর বয়সে তার বাবা মারা গেলে তার মা তাকে বৌদ্ধ ধর্মের শিক্ষায় বড় করে তোলেন। তখন দিলশানের ছোট ভাই শ্রীলঙ্কার আরেক ক্রিকেটার তিলকরত্নে সাম্পাথের বয়স ছিল ১৫ বছর।

৬. মার্টিন গাপটিল (নিউজিল্যান্ড):
ব্রেন্ডন ম্যাককালাম এর পর ২য় কিউই ব্যাটসম্যান হিসেবে গড়েছেন তিন ফরম্যাটে সেঞ্চুরি করার রেকর্ড। একদিনের ক্রিকেটে তার মোট রান ৫,৮৬৩। এতে সেঞ্চুরি আছে ১২টি।

৭. আহমেদ শেহজাদ (পাকিস্তান):
আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি আছে এ তালিকায় একমাত্র পাকিস্তানি খেলোয়াড় আহমেদ শেহজাদ। ১৯৯১ সালে লাহোরের এক পশতুন পরিবারে শেহজাদের জন্ম। মাত্র ২ বছর বয়সে বাবাকে হারান। তার মা একা হাতেই বড় করেছেন তাকে। স্বপ্ন দেখতেন পাকিস্তানের জার্সি গায়ে জাতীয় দলের হয়ে খেলার, মায়ের কষ্ট দূর করার।

৮. রোহিত শর্মা (ভারত):
সুরেশ রায়নার পর তিন ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি করা ২য় ভারতীয় খেলোয়ার রোহিত শর্মা। ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম এক সেরা ব্যাটসম্যান তিনি। পুরো নাম রোহিত গুরুনাথ শর্মা, ডাকনাম হিটম্যান। ভারতীয় জাতীয় দলের এক নিয়মিত মুখ। ব্যাট হাতে গড়েছেন অসংখ্য রেকর্ড। তবে তার সাফল্যগুলো যেন বিরাট কোহলির আড়ালে ঢাকা পড়ে যায়। একমাত্র ব্যাটসম্যান হিসেবে করেছেন ৩টি ডাবল সেঞ্চুরি। একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটিও তার দখলে । ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলেন ২৬৪ রানের এক দানবীয় ইনিংস।

৯. তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ):
এ তালিকায় একমাত্র বাংলাদেশী খেলোয়ার বাঁহাতি ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল খান। চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী খান পরিবারের ছেলে তামিম। চাচা আকরাম খান এবং বড় ভাই নাফিস ইকবাল খেলেছেন জাতীয় দলের হয়ে। তিন ফরম্যাট মিলিয়ে বাংলাদেশের হয়ে প্রথম ১০,০০০ হাজার রান সংগ্রাহক তিনি। একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তামিমের পথচলা শুরু হয় ২০০৭ সালে। প্রতিপক্ষ ছিল জিম্বাবুয়ে। পরের বছর নিউজিল্যান্ডের সাথে হয় টেস্ট অভিষেক। টেস্ট ক্রিকেটে তার সেঞ্চুরির সংখ্যা ৮টি।

১০. শেন ওয়াটসন (অস্ট্রেলিয়া):
ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের অন্যতম এক কান্ডারী। নিজের সময়কালে ছিলেন অন্যতম এক সেরা ব্যাটিং অলরাউন্ডার। ২০০২ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তার একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়। সে বছরই লাভ করেন ‘ব্র্যাডম্যান ইয়াং ক্রিকেটার অফ দ্য ইয়ার’ পুরস্কার।

১১. ফাফ ডু প্লেসিস (দক্ষিণ আফ্রিকা):
তিন ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি পাওয়া একমাত্র দক্ষিণ আফ্রিকান খেলোয়াড় ফাফ ডু প্লেসিস। বর্তমানে তিন ফরম্যাটেই দক্ষিণ আফ্রিকাকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন তিনি। ২০১১ সালে ভারতের বিপক্ষে একদিনের ক্রিকেটে অভিষেক হয়। ২০১২ সালে জেপি ডুমিনির ইনজুরির সুবাদে টেস্ট দলে তার জায়গা হয়।

১২. কে এল রাহুল (ভারত):
তিন ফরম্যাটেই সেঞ্চুরি পাওয়া তৃতীয় ভারতীয় তিনি। পুরো নাম কানানুর লোকেশ রাহুল। তার বাবা এবং মা দুজনই অধ্যাপক। তবে নিজে আর বাবা মায়ের পেশা বেছে নেননি। ২০১৪ সালে বক্সিং ডে টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তার টেস্ট অভিষেক হয়। নিজের ২য় টেস্টে করেছিলেন সেঞ্চুরি।

১৩. গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (অস্ট্রেলিয়া):
এ তালিকায় সর্বশেষ জায়গা পেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। বলা বাহুল্য, শেন ওয়াটসন এর পর ২য় অস্ট্রেলিয়ান হিসেবে তিনি গড়েছেন এই কীর্তি। টেস্ট এবং একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার সেঞ্চুরি ১টি করে। তবে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সেঞ্চুরি করেছেন দুবার। ২০১৬ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলেছেন ৬৫ বলে ১৪৫ রানের ইনিংস। গত বছরের ১৬ই মার্চ ভারতের বিপক্ষে পান টেস্ট ক্রিকেটের প্রথম সেঞ্চুরি।